আর্কাইভ  শুক্রবার ● ২১ জানুয়ারী ২০২২ ● ৮ মাঘ ১৪২৮
আর্কাইভ   শুক্রবার ● ২১ জানুয়ারী ২০২২

ঘোড়াঘাটের চারটি ইউনিয়নে নৌকা প্রতীক পেলেন যারা

রবিবার, ২ জানুয়ারী ২০২২, দুপুর ০৩:২৫

মাহতাব উদ্দিন আল মাহমুদ: আগামী ৩১ জানুয়ারী ৬ষ্ঠ ধাপে ইউনিয়ন পরিষদের সাধারণ নির্বাচনে দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার ৪টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীক  পেয়েছেন, পৌর সাধারণ সাম্পাদক মোঃ আসাদুজ্জামান ভুট্টু,উপজেলা আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান কাজী মোঃ মাকসুদুর রহমান লাবু,সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ সদের আলী খন্দকার ও সিংড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আঃ মান্নান মন্ডল।

 আগামী ৩১ জানুয়ারী ৬ষ্ঠ ধাপে দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার ৪টি ইউনিয়ন পরিষদের সাধারণ নির্বাচন। নির্বাচনে দলীয় মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেছে আওয়ামীলীগ। ১ জানুয়ারী মনোনয়ন বোর্ডের সভা শেষে দলীয় প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন ক্ষমতাসীন দলটি।

৬ষ্ঠ ধাপের এই নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ঘোড়াঘাট উপজেলার ১নং বুলাকীপুর ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সদের আলী, ২নং পালশা ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান কাজী মাকসুদুর রহমান লাবু চৌধুরী, ৩নং সিংড়া ইউনিয়নে সিংড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল মান্নান মন্ডল ও ৪নং ঘোড়াঘাট ইউনিয়নে পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আসাদুজ্জামান ভুট্টু পেয়েছেন দলীয় মনোনয়ন।

গত ২০১৬ সালে এই চারটি ইউনিয়নে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সেই নির্বাচনেও এই ৪ জন প্রার্থীকেই মনোনয়ন দিয়েছিল আওয়ামীলীগ। এবারের নির্বাচনেও তারাই পুনরায় পেলেন নৌকা প্রতীক।

২০১৬ সালের ওই নির্বাচনে ৪টি ইউনিয়নের মধ্যে শুধু মাত্র সিংড়া ইউনিয়নে জয়লাভ করতে পেরেছিল আওয়ামীলীগ। বাকি ৩টির মধ্যে বুলাকীপুর এবং ঘোড়াঘাট ইউনিয়নে জয়লাভ করেছিল বিএনপির প্রার্থী এবং পালশা ইউনিয়নে জয়লাভ করেছিল আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মোঃ কবিরুল ইসলাম প্রধান।

গত নির্বাচনে আওয়ামীলীগ প্রার্থীদের পরাজয়ের কারণ হিসেবে জানতে চাওয়া হলে উপজেলা আওয়ামীলীগের বেশ কয়েক জন নেতা বলেন, গত ২০১৬ সালের নির্বাচনে ৪টি ইউনিয়নেই আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ছিল। এ কারণে দলের মনোনীত প্রার্থীদেরকে পরাজয় বরণ করতে হয়েছে।

তারা বলছে, এবার আমরা মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থীদের সাথে একাধিকবার আলোচনা ও সমন্বয় করা হয়েছে। আশা করছি দলের সিদ্ধান্তের বাইরে কেউ সিদ্ধান্ত নিবে না।আমাদের বিশ্বাস এবার কেউই  বিদ্রোহী প্রার্থী হবে না। ্অন্যান্য আওয়ামীলীগের নেতারা বিদ্রোহী না হলে ৪টি ইউনিয়নেই নৌকার প্রার্থী জনগণের স্বতঃস্ফুর্ত ভোটে বিপুল ভোট পেয়ে নির্বাচিত হবে।

মন্তব্য করুন


Link copied