আর্কাইভ  শনিবার ● ২৯ জানুয়ারী ২০২২ ● ১৬ মাঘ ১৪২৮
আর্কাইভ   শনিবার ● ২৯ জানুয়ারী ২০২২

প্রতিমন্ত্রী মুরাদের পদত্যাগে রংপুরে জাপার মিষ্টি বিতরণ

মঙ্গলবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২১, বিকাল ০৬:৩৮

মহানগর প্রতিনিধি: সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ঢালাও ভাবে বিতর্কিত মন্তব্য করে দেশজুড়ে সমালোচনার মুখে পড়া তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মোঃ মুরাদ হাসানকে মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ খবর জানাজানি হলে রংপুরে তাৎক্ষণিক আনন্দ উদযাপনে মিষ্টি বিতরণ করেছে জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা।

গতকাল সোমবার রাতে রংপুর নগরীর সেন্ট্রাল রোডস্থ জাতীয় পার্টির দলীয় কার্যালয়ে দলের নেতাকর্মীরা একে অপরকে মিষ্টিমুখ করানোর পাশাপাশি পথচারী সাধারণ মানুষের মধ্যে মিষ্টি বিতরণ করেন। 
 রংপুরের জাতীয় পার্টির নেতাদের দাবি, দেরিতে হলেও  আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সাধারণ মানুষের মতো জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরাও তাঁর এ সিদ্ধান্ত কে সাধুবাদ জানিয়েছে। তবে শুধু পদত্যাগ নয়, ডাঃ মুরাদ হাসানের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণেও সরকারের প্রতি আহ্বান দলটির নেতা কর্মি দের।
 জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির ভাইস-চেয়ারম্যান ও রংপুর মহানগর সাধারণ সম্পাদক এসএম ইয়াসীর বলেছেন, প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মুরাদ হাসান রাজনৈতিক শিষ্টাচার বহির্ভূত কাজ করেছে। অশালীন, কুরুচিপূর্ণ ও বিতর্কিত মন্তব্য করতে গিয়ে কাউকে বাদ রাখেনি। রাষ্ট্র ধর্ম ইসলাম, সংবিধান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে নিয়েও আজে বাজে কথা বলেছেন। আমরা তার বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে পদত্যাগ দাবি করে মিটিং মিছিল করেছিলাম। দেরিতে হলেও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সেটিকে আমরা স্বাগত জানাই।
তিনি আরো বলেন, পদত্যাগ কোনো সমাধান নয়, এটা দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে হবে। জনপ্রতিনিধিদের প্রতি মানুষের আস্থা ও বিশ্বাসের জায়গা ফিরিয়ে আনতে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়টিও সরকারকে নিশ্চিত করার আহবান জানান।
রংপুর মহানগর জাতীয় যুব সংহতির সভাপতি মোঃ শাহিন হোসেন জাকির বলেন, দেশের ৫০ বছরের ইতিহাসে এমন উদ্ভট তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী আগে ছিল বলে মনে হয় না।  আধুনিক প্রযুক্তির যুগে একটা গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে থেকে যেভাবে অশ্রাব্য ভাষায় কথা বলে চলেছেন, তা সত্যিই লজ্জাজনক।  
  বিতর্কের হাত থেকে রক্ষা করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানকে পদত্যাগের নির্দেশ দেয়ায় জাতীয় পার্টি এবং বিএনপি ছাড়াও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ও সন্তোষ প্রকাশ কওে ফেসবুকে পোস্ট দিয়েছেন।

মন্তব্য করুন


Link copied