আর্কাইভ  বৃহস্পতিবার ● ২০ জানুয়ারী ২০২২ ● ৭ মাঘ ১৪২৮
আর্কাইভ   বৃহস্পতিবার ● ২০ জানুয়ারী ২০২২

রংপুরে স্ত্রী’র দায়ের করা যৌতুক ও নির্যাতন মামলায় শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা কারাগারে

রবিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০২১, বিকাল ০৫:৫৮

 মমিনুল ইসলাম রিপন: স্ত্রী’র দায়ের করা যৌতুক ও নির্যাতন মামলায় নীলফামারী শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা ইমরান মিয়াকে (৩৩) কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। রোববার দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল -১ এর বিচারক মো. যাবিদ হোসেন তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন, রংপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর পিপি অ্যাড. খন্দকার মো. রফিক হাসনাইন। ইমরান মিঞা রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার হাসানপুর গ্রামের আবু তালেব মিঞার ছেলে এবং নীলফামারী জেলার শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা।
মামলা সূত্রে জানা যায়, চলতি বছরের ২১ মে রংপুর নগরীর কেরানীপাড়া এলাকার মোশারফ হোসেন খানের মেয়ে মাহমুদা মারজিয়া মুক্তার (৩০) সাথে ইমরান মিয়ার বিয়ে হয়। এরপর রংপুর নগরীর ধাপ লালকুঠি এলাকার একটি বাড়ি ভাড়া নিয়ে বসবাস করতে থাকেন তারা। পরবর্তীতে তাদের বিয়ে পারিবারিকভাবে মেনে নেয়ার কথা জানিয়ে স্ত্রী মুক্তার কাছ থেকে ৩০ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন ইমরান। এতে মুক্তা রাজি না হলে তাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করেন ইমরান। এ ঘটনায় গত ৯ অক্টোবর ইমরানকে আসামি করে রংপুর মেট্রোপলিটন কোতয়ালী থানায় মামলা দায়ের করেন মুক্তা। জামিনে থাকা ইমরান রোববার ওই মামলায় জামিন নিতে আদালতে উপস্থিত হলে বিচারক শুনানি শেষে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। 

মন্তব্য করুন


Link copied