আর্কাইভ  বৃহস্পতিবার ● ২০ জানুয়ারী ২০২২ ● ৭ মাঘ ১৪২৮
আর্কাইভ   বৃহস্পতিবার ● ২০ জানুয়ারী ২০২২

‘তথ্য প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্য ব্যক্তিগত, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করব’

সোমবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২১, দুপুর ০৩:৩৭

ডেস্ক: দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নাতনি ব্যারিস্টার জাইমা রহমানকে নিয়ে বিদ্বেষমূলক যে বক্তব্য তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান ভার্চুয়াল আলোচনায় দিয়েছেন তা তার ব্যক্তিগত মত বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বিষয়টি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আলোচনা করবেন বলেও জানান তিনি।

আজ সোমবার আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র এবং দলীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সেতুমন্ত্রী এ কথা জানান।

তথ্য প্রতিমন্ত্রী যে বিদ্বেষমূলক বক্তব্য দিয়েছেন এতে দল বা সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে কিনা- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এটা তার ব্যক্তিগত মন্তব্য হতে পারে। আমাদের দলের বা সরকারের কোনো বক্তব্য বা মন্তব্য না। এই ধরনের বক্তব্য কেন সে দিলো, অবশ্যই আমি বিষয়টি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করব।’
 
প্রসঙ্গত, খালেদা জিয়ার নাতনি ব্যারিস্টার জাইমা রহমানকে নিয়ে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের বিদ্বেষমূলক বক্তব্য নিয়ে দেশজুড়ে নানা সমালোচনা হচ্ছে। বেসরকারি সংগঠন নারীপক্ষ এবং ৪০ নারী অধিকার কর্মী আলাদা বিবৃতিতে তথ্য প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছে। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে নারীপক্ষের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়েছে।

এদিকে, জাইমা রহমানকে নিয়ে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের করা মন্তব্যকে ‘হীন রাজনৈতিক দূরভিসন্ধিমুলক, নারী ও বর্ণবিদ্বেষী, বিকৃত’ বলে উল্লেখ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সেইসঙ্গে অবিলম্বে তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে বক্তব্য প্রত্যাহার করে জনসমক্ষে ক্ষমা চেয়ে পদত্যাগ করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

আজ সকালে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানান বিএনপি মহাসচিব। বিবৃতিতে তথ্য প্রতিমন্ত্রী পদত্যাগ না করলে ভবিষ্যতে যথাসময়ে এর দাঁতভাঙ্গা জবাব দেওয়া হবে বলেও সুস্পষ্টভাবে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন তিনি।

মন্তব্য করুন


Link copied